iQOO 12 Pro

iQOO 12 Pro আধুনিক বৈশিষ্ট্য ও ক্যামেরা কোয়ালিটি, দাম মাত্র এতটাই

What is the price of iQOO 12 Pro? আমরা স্মার্টফোনপ্রেমীরা সবসময়ই অপেক্ষায় থাকি নতুন প্রযুক্তি, নতুন ফিচার এবং আরও উন্নত পারফরমেন্সের জন্য। সেই ধারাবাহিকতায় বজায় রাখতে আই কু কোম্পানি নিয়ে আসছে iQOO 12 PRO স্মার্টফোন। আর এটি যেন নতুন এক দিগন্তের উন্মোচন ঘটাবে বলেই মনে করা হচ্ছে। তৃতীয় প্রজন্মের শক্তিশালী প্ল্যাটফর্ম, আপগ্রেড সফটওয়্যার, সুপার গ্রাফিড ব্যাটারি ও ক্যামেরার নতুন ফলোয়াপ প্রধান দিয়ে এই স্মার্টফোনটির পূর্ণরূপ করা হয়েছে।স্মার্টফোনের বৈশিষ্ট্য উচ্চ মানে হওয়ার জন্য ইতিমধ্যেই ব্যবহারকারীদের মধ্যে বেশ আলোচ্যের বিষয় হয়ে উঠেছে।

iQOO 12 Pro

আই কু কোম্পানি, উচ্চমানের গেমিং স্মার্টফোন তৈরি করার লক্ষ্য নিয়ে 2019 সালে vivo কোম্পানির সাব-ব্যান্ড হিসাবে যাত্রা শুরু করেছিল। তবে বর্তমান সময়ে তারা নিজস্ব ব্যান্ড হিসেবে স্বীকৃতি নেয়। আই কু তাদের প্রথম গেমিং স্মার্টফোনটি লঞ্চ করে 2019 সালে এবং এই ফোনটি গেমিং কমিউনিটিতে ব্যাপকভাবে উত্তেজনার সৃষ্টি করে। পরে ধীরে ধীরে তারা এগিয়ে চলে, প্রযুক্তির মাধ্যমে মানুষের জীবনকে সহজতর করার জন্য।

iQOO 12 Pro Design

ফোনের ডিজাইন মানুষকে বেশি আকৃষ্ট করে। তাই আই কু কোম্পানি এই স্মার্টফোনটিকে ডিজাইনের আলাদা লুক দিয়েছে। দেখতে যেমন সুন্দর তেমনি হাতে নিলে বোঝাবে প্রিমিয়াম ফিনিশিং। মেটাল ফ্রেম এবং গ্লাস ব্যাক ডিজাইন ফোনটিকে আকর্ষণীয় লুক দেয়। পিছনের বডি থেকে ক্যামেরার সেটআপ স্কয়ার রাউন্ডের মধ্য দিয়ে থাকার জন্য ফোনটি গ্লেজি স্মার্টনেস উৎক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে এবং ওয়াটার ড্রপ নচ ডিজাইনের ডিসপ্লে আরব বিস্তৃত ভিউয়ের অভিজ্ঞতা প্রদান করে আপনার স্মার্টনেস কে বাড়িয়ে তোলে।

iQOO 12 Pro

iQOO 12 Pro Display

2K রেজোলিউশন ও 517ppi পিক্সেল ঘনত্ব সহ QHD+ OLED 6.78 ইঞ্চি ডিসপ্লে আপনার চোখে দেবে একটি চমৎকার ভিসুয়াল ট্রিট। 144Hz রিফ্রেস রেট, HDR10+ থাকায় গ্রেমিং, ভিডিও দেখা বা সাধারণ ব্রাউজিং এ পাওয়া যাবে নতুন অভিজ্ঞতা। উচ্চ ফ্রিকোয়েন্সি PWM দিমিং থাকার জন্য, ব্লু আলো থেকে আপনার চোখকে সুরক্ষা দেবে। 3000nits সর্বোচ্চ উজ্জ্বলতা জন্য দিনে তীব্র সূর্যের আলোতেও স্মার্টফোনের স্কিন দেখতে কোন অসুবিধায় পড়তে দেবে না।

iQOO 12 Pro Camera

iQOO 12 Pro ক্যামেরা অত্যন্ত আধুনিক। যার তিনটি ক্যামেরা এবং পাঁচটি ফোকাল লেন্থ সহ ওয়ানলি লাইট চেজিং ইমেজিং সিস্টেম,ফ্ল্যাগশিপ ইমেজিং একটি নতুন অধ্যায়ের সূচনা করে। 1/1.3-ইঞ্চি ফলো-আপ 50 মিলিয়ন পিক্সেল প্রধান ক্যামেরার মধ্যে অবশিষ্ট আছে স্ব-উন্নত VCS বায়োনিক স্পেকট্রাম ও 23 মিমি ফোকাল লেন্থ | আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল/ সুপার ম্যাক্রো লেন্সের সাথে পাওয়া যাবে 50 মেগাপিক্সেল সেকেন্ডারি ক্যামেরা এবং দেখা যাবে 64 মেগাপিক্সেল পেরিস্কোপ টেলি ফটো লেন্স। যা OIS বৈশিষ্ট্যের সাথে 3X অপটিক্যাল জুম সম্পন্ন করা যাবে। এই পেরিস্কোপ ক্যামেরার 10x হাই ডেফিনেশন জুম এবং 100x পর্যন্ত ডিজিটাল জুম সমর্থন করে।

iQOO 12 Pro

ফোনটি সামনের দিকে সেলফি বা ভিডিও কলিং এর জন্য 16 মেগাপিক্সেল ওয়ার্ল্ড অ্যাঙ্গেল প্রাইমারি ক্যামেরার সিঙ্গেল সেটাপ দেখা যাবে। যার মাধ্যমে আপনি 1920×1080@30fps ভিডিও রেকর্ডিং করতে পারবেন এবং পিছনের ক্যামেরা দিয়ে 8150×6150 পিক্সেল ফটো তুলতে সক্ষম হবেন। অন্যান্য স্মার্টফোনের মতই, এই ফোনটিতে ক্যামেরার অনেকগুলি বৈশিষ্ট্য দেখা যায়। সেগুলির মধ্যে অন্যতম হলো শুটিং মুডস। তাছাড়া আছে ডিজিটাল জুম, অটো ফ্লাস, ফেস ডিটেকশন, স্লো মোশন ভিডিও রেকর্ডিং ইত্যাদি।

iQOO 12 Pro Performance

উচ্চ মানের লোডের জন্য আগে থাকতেই স্মার্টফোনটির মধ্যে একটি বড় মাল্টি-কোর আর্কিটেকচার বানানো হয়েছে। GPU পারফরমেন্স আরো উন্নত করতে Adreno 750 গ্রাফিক্স প্রসেসিং ব্যবহার করা হয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড v14 এর সাথে কাস্টম ইউ আই origin অপারেটিং সিস্টেম ফোন ডিচে স্মুথলি কাজ করাতে সাহায্য করে। স্মার্টফোনটির মধ্যে Octa core প্রসেসরের সাথে Qualcomm sanpdragon 8 ভার্সনের 3 জেন চিপ সেট ব্যবহার করা হয়েছে। শক্তিশালী কার্যক্রম বা বড় ফাইল অনুলিপি করার জন্য দেখা যাবে 12GB র‍্যাম ও 512GB স্টোরেজ। অতিরিক্ত সঞ্চয়ের জন্য আপনি মাইকো এইচডি স্লটের এর মাধ্যমে 1TB পর্যন্ত স্টোরেজ করতে পারেন।

iQOO 12 Pro

iQOO 12 Pro Battery

ফুল-টাইম চার-জোন তাপ অপচয়, সুনির্দিষ্ট তাপ উৎস নিয়ন্ত্রণ, স্থিতিশীল ক্ষেত্রের নিয়ন্ত্রণ করতে 5100mAh অপসারণযোগ্য ব্যাটারি ব্যবহার করেছে আই কু কোম্পানি। 120w ইউএসবি টাইপ সি স্ট্যান্ডার্ড চার্জারের মাধ্যমে স্মার্টফোনটি কে 20 মিনিটের মধ্যে সম্পূর্ণ চার্জ করে উঠতে সক্ষম হবেন। আপনি যদি চান 50w ওয়ারলেস চার্জারের মাধ্যমে চার্জ করতে পারেন।

iQOO 12 Pro

iQOO 12 Pro Battery Price & Launch Date

Iqoo কোম্পানির iQOO 12 Pro স্মার্টফোন ইতিমধ্যেই চিনা বাজারে লঞ্চ করা হয়ে গিয়েছে এবং এর বিভিন্ন ভেরিয়েন্টের বিভিন্ন মূল্য নির্ধারিত করা হয়েছে। তবে, এটি ভারতে কবে লঞ্চ হবে সেই বিষয়ে কোম্পানির পক্ষ থেকে কোন অফিসিয়াল এনাউন্সমেন্ট করেনি। ফোনটি 2024 এর মধ্যেই লঞ্চ হবে বলে আশা করা যায়।ভারতবর্ষে এই স্মার্টফোনটির মূল্য শুরু হতে পারে 20000 টাকা থেকে।

iQOO 12 Pro smart phone Specification

কোম্পানিiQOO
মডেলiQOO 12 Pro
অপারেটিং সিস্টেমAndroid v14, Magic UI
ডিসপ্লে6.78 inches punch-hole Bezel-less OLED display, HDR10+
র‍্যাম ও স্টোরেজ16 GB+256GB & 16 GB+512GB
প্রসেসরOcta core
পিছনে ক্যামেরা50MP + 50MP + 64MP with OIS , 100x ZOOM
সামনে ক্যামেরা16 MP
ব্যাটারী5100mAH Li-Polymer
চার্জারUSB Type-C 100w SUPERVOOC fast, 30w Wireless Charger
সিমDual Nano
মূল্য এবং লঞ্চ তারিখNo official Announcement
iQOO 12 Pro

কিভাবে মোবাইলে আধার কার্ড ডাউনলোড করবেন

আভা এবং আয়ুষ্মান কার্ডের মধ্যে পার্থক্য

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *