pub-2871009482795349

Hero Splendor xtec 2.0

By todayisbest.com

Published on:

Hero Splendor xtec 2.0 Price : দুই চাকা মোটরসাইকেলের বিশ্বস্ত কোম্পানির নাম হিরো মোটোকর্প। ভারতের অন্যতম বৃহত্তম দুই চাকা নির্মাণ কোম্পানি আনতে চলেছে Hero Splendor xtec 2.0। চোখ বন্ধ করে বাইক ব্যবহারকারীরা বিশ্বাস রাখতে পারেন। 1984 সালে হোন্ডা কোম্পানির সাথে যুক্ত হয়ে ভারতবর্ষে যাত্রা শুরু করে এবং 25 সাল পর্যন্ত বিজনেস করার পর 2011 সালে দুটি কোম্পানিতে আলাদা হয়ে যায়।

Hero Splendor xtec 2.0

আজ আমরা আলোচনা করব হিরো মোটোকর্প-এর এমন একটি দুই চাকার মোটরসাইকেল সম্পর্কে যা ভারতীয় রাস্তায় দশকের পর দশক ধরে বিশ্বাসযোগ্যতার প্রতীক হয়ে উঠেছে। আমরা হিরো স্প্লেন্ডার বাইক এর কথাই বলছি। হিরো কোম্পানি তাদের বিশ্বস্ত জায়গা ধরে রাখার জন্য ” হিরো স্প্লেন্ডার কে ডেভেলাপ করে, আবারো ভারতীয় রাস্তায় আনতে চলেছে। এই জনপ্রিয় মোটরসাইকেলের আধুনিক ফিচার নিয়ে হাজির হচ্ছে HERO SPLENDOR XTEC 2.0।

Hero Splendor xtec 2.0 Design

নিশ্চিতভাবেই, নতুন হিরো স্প্লেন্ডার 2.0 এর মডেল আগের পুরানো মডেলের তুলনায় আধুনিক করা হয়েছে। সামনের দিকে আছে এলইডি হেডলাইট যা দিনের আলো প্রদান করবে। রয়েছে নতুন ডিজাইন করা গ্রাফিক্স প্যানেল, বাইকটিকে আরো আকর্ষণীয় করে তুলবে। দীর্ঘ দূরত্বের সফরের জন্য মোটর সাইকেলটিতে সংশ্লিষ্ট করা হয়েছে একটি লম্বা সিট। যেটা আপনার পিঠের কোন ক্ষতি হতে দেবে না। এটি একটি আধুনিক ও আকর্ষণীয় দুই চাকা। দেখা মাত্রই আপনাকে মুগ্ধ করে দেবে। আছে 3D হিরো লোগো। যাতে আপনি হিরোর বিশ্বাস ও গর্বের সাথে মোটর সাইকেলটি ব্যবহার করতে পারেন।

Hero Splendor xtec 2.0 Features

বাইকটির মুগ্ধকর বৈশিষ্ট্যের জন্যই আপনি আরো বাইকটিকে পছন্দ করবেন। হিরো কোম্পানি অনেক কিছুই পরিবর্তন করেছে এই নতুন দুই চাকাটির মধ্যে।

  • স্পিডোমিটার : একটি উন্নত ডিজিটাল ডিসপ্লে বা ড্যাশবোর্ড পাওয়া যাবে। যেখানে সর্বোত্তম স্পিডোমিটার, ওডোমিটার, ট্রিপ মিটার, গিয়ার ইন্ডিকেটর, ফুয়েল ডিটেলস এবং তার সাথে রিয়েল টাইম মাইলেজের মতো বিভিন্ন তথ্য দেখা যাবে।
  • ব্লুটুথ সংযোগ : হ্যাঁ আপনি ঠিকই পড়েছেন। স্প্লেন্ডারের নতুন সংস্করণের সঙ্গে সংযুক্ত আছে ব্লুটুথ। এর মাধ্যমে আপনি আপনার স্মার্টফোনটি মোটর সাইকেলটির সাথে সংযোগ করতে পারবেন। ফলে কল, এসএমএস, ব্যাটারি লেভেল এবং গুগল ম্যাপ নেভিগেশন এর সঠিক সূচনা পাবেন।
  • USB চার্জিং পোর্ট : অনেক সময় আমরা স্মার্টফোনে সঠিক চার্জ না থাকায় অসুবিধার সম্মুখীন হয়ে থাকি। সেই দিকে লক্ষ্য রেখে হিরো কোম্পানি স্প্লেন্ডারটির মধ্যে সংযোগ করেছেন ইউএসবি চার্জিং পোর্ট। এখন আর আপনার ফোন ডিচার্জ হবে না, বরং আপনি সহজেই চার্জ করতে পারবেন।
  • LED হেডলাইট এবং টেললাইট : স্প্লেন্ডারের পুরানো মডেলটিতে হলুদ রঙের আলো ব্যবহার করা হতো, তাতে দুর্ঘটনার সম্মুখীন হওয়ার চান্স অনেকটাই,কিন্তু নতুন মডেলটিতে আধুনিক এলইডি হেডলাইট এবং টেললাইট রাতের বেলা উজ্জ্বল এবং পরিষ্কার দেখানোর পাশাপাশি দিনের আলোতে বেশ দৃশ্যমান।
Hero Splendor xtec 2.0

Hero Splendor xtec 2.0 Performance

হিরো স্প্লেন্ডার এক্সটেক 2.0 একটি নতুন 125 সিসি এয়ারকুল ইঞ্জিনের সাথে দেখা মিলবে। এই ইঞ্জিনটি সর্বোচ্চ শক্তি 10.7 BHP @ 7500 RPM এবং 10.6 NM @ 6000 RPM টর্ক জেনারেট করে যা আগের মডেলের তুলনায় অনেকটাই বেশি। সংযুক্ত করা আছে অ্যাডভান্স প্রোগ্রাম ফুয়েল ইনজেকশনের সাথে 12 লিটার ফুয়েল ট্যাঙ্ক। হিরো মোটর কোম্পানি এখনো পর্যন্ত মাইলেজ নিয়ে কোন অফিশিয়াল ঘোষণা করেনি। তবে বিভিন্ন ইঞ্জিন বিশেষজ্ঞরা মনে করেন যে, বাইকটি 80 থেকে 90 কিলোমিটার মাইলেজ দিতে পারবে।

Hero Splendor xtec 2.0

Hero Splendor xtec 2.0 Price

রঙ এবং বিকল্পের নির্বাচনে মোটর সাইকেলটির উপর ভিন্ন মূল্য নির্ধারিত করেছে হিরো কোম্পানি। চারটি ভিন্নর রঙে পাওয়া যাবে এই স্টাইলিস্ট স্প্লেন্ডার টিকে এবং তার সাথে মিলবে দুটি ভিন্ন বিকল্প। আধুনিক মোটর সাইকেলটি ক্রয় করতে ক্লিক করুন।

Hero Splendor xtec 2.0

Hero Splendor xtec 2.0 Specification

ENGINE TYPEএয়ার কুলড, 4-স্ট্রোক, ওএইচসি, একক সিলিন্ডার
WHEELSসামনের টায়ার: 80/100- 18 টিউবলেস এবং পিছনের টায়ার: 90/90- 18 টিউবলেস
SUSPENSION5-পদক্ষেপ সামঞ্জস্যযোগ্য টেলিস্কোপিক হাইড্রোলিক শক শোষক
BRAKESসামনের ব্রেক : ডিস্ক – দিয়া 240 মিমি এবং পিছনের ব্রেক : ড্রাম 130 মিমি
CHASSIS5-গতি ধ্রুবক ,
SYSTEM STARTসেল্ফ স্টার্ট (i3S সহ) এবং কিক
BATTERYMF ব্যাটারি, 12V-4Ah

পুরানো মডেলের সাথে নতুন মডেলের তুলনা

বিষয়সুপার স্প্লেন্ডার এক্সটেকসুপার স্প্লেন্ডার
এলইডি হেডল্যাম্পহ্যাঁনা
উচ্চ তীব্রতা অবস্থান বাতিহ্যাঁনা
সম্পূর্ণ ডিজিটাল স্পিডোমিটারহ্যাঁনা
ব্লুটুথ সংযোগহ্যাঁনা
কল এবং এসএমএস সতর্কতাহ্যাঁনা

todayisbest.com

2 thoughts on “Hero Splendor xtec 2.0”

Leave a Comment